Home » নাকের পলিপাস এর ঘরোয়া চিকিৎসা করবেন কিভাবে? জেনে নিন
নাকের পলিপাস এর ঘরোয়া চিকিৎসা

নাকের পলিপাস এর ঘরোয়া চিকিৎসা করবেন কিভাবে? জেনে নিন

by Dr. ABM Khan
0 comment 245 views

নাকের পলিপাস কি?

নাকের পলিপগুলোর বৃদ্ধির ফলে যখন সাইনাসে বিকশিত হয় তখন তাকে নাকের পলিপাস বলা হয়। এগুলি বেশ সাধারণ অ্যালার্জি, প্রদাহ বা সংক্রমণের কারণে হতে পারে। সাধারণত, নাকের পলিপ কোন উপসর্গ সৃষ্টি করে না। আবার কিছু ক্ষেত্রে উপসর্গ দেখা দেয়। যেমন- চুলকানি, সর্দি, হাঁচি, শ্বাস নিতে অসুবিধা ইত্যাদি। নাকের পলিপাস এর চিকিৎসায় চিকিৎসকরা স্টেরয়েড অনুনাসিক স্প্রে বা প্রেডনিসোন লিখে দিতে পারেন যাতে আপনি কিছুটা স্বস্তি অনুভব করতে পারেন। কিন্তু আপনি যেহেতু পলিপাস এর ঘরোয়া চিকিৎসা বা প্রাকৃতিক প্রতিকার খুঁজছেন, তাই এই নিবন্ধটি আপনার জন্য।

কিভাবে নাকের পলিপাস থেকে মুক্তি পেতে পারি?

পলিপাস হলে সবসময় চিকিৎসা করতে হবে এমনটা নয়। মাঝে মাঝে আপনার চিকিৎসা করার প্রয়োজন নাও হতে পারে। কারণ নাকের অনুনাসিক পলিপগুলো প্রাকৃতিকভাবে সঙ্কুচিত এবং প্রসারিত হয়ে থাকে। আপনার নাকে যদি পলিপ বৃদ্ধি ঘটে তবে নিজে থেকেই তা অপসারণের চেষ্টা করা থেকে বিরত থাকবেন। তবে আপনি যদি খুব বিরক্ত ও অস্বস্তি বোধ করেন তবে এই পলিপগুলো সঙ্কুচিত করতে বা পলিপাস থেকে মুক্তি পেতে ঘরোয়াভাবে কিছু কাজ করতে পারেন, অথবা চিকিৎসকের শরণাপন্ন হতে পারেন।

অন্যান্য লেখা:

রক্তস্বল্পতার লক্ষণ, কারণ ও দূর করার উপায়

শিশুর নিউমোনিয়া রোগের লক্ষণ ও প্রতিকারের উপায়

নিউমোনিয়া কি, কেন হয় এবং লক্ষণ গুলো কি কি?

নাকের পলিপাস এর ঘরোয়া চিকিৎসা

সাধারণত প্রদাহের কারণে আপনার নাকের পলিপগুলি বৃদ্ধি পেয়ে থাকে। তাই আপনি যদি নাকে প্রদাহ হওয়া রোধ করতে পারেন তবে নাকের পলিপাস সমস্যা হওয়া থেকে অনেকটা রক্ষা পাবেন। আপনার অনুনাসিক পলিপগুলির সমস্যা আটকানোর জন্য আপনি বাড়িতে যেসব ব্যবস্থা গ্রহণ করতে পারেন সেগুলো হলো-

হিউমিডিফায়ার ব্যবহার

আপনি বাড়িতে বহনযোগ্য হিউমিডিফায়ার ব্যবহার করতে পারেন। এগুলোর আর্দ্র বাতাস আপনার অনুনাসিক প্যাসেজগুলোকে শান্ত করতে পারে। আর্দ্রতার মাত্রা ৩০%-৫০% এর মধ্যে রাখুন। সর্বোচ্চ ফলাফল পেতে নিয়মিত হিউমিডিফায়ার পরিষ্কার করুন এবং শুধুমাত্র পাতিত জল ব্যবহার করুন।

অনুনাসিক প্যাসেজ ধোয়া

আপনি সামান্য উষ্ণ পানিতে লবণ মিশিয়ে খানিকটা নোনা করে আপনার নাকের অনুনাসিক প্যাসেজগুলি ধুতে পারেন। এতে আপনার অনুনাসিক প্যাসেজগুলো আর্দ্র থাকবে এবং শ্লেষ্মা ও অ্যালার্জেনগুলি সরিয়ে ফেলে জ্বালা বা প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে।

অন্যান্য শ্বাসযন্ত্রের চিকিৎসা

আপনার যদি অ্যালার্জি বা হাঁপানি থাকে, তবে আপনার নাকের পলিপাস হওয়ার সম্ভাবনা বেশি। এজন্য অ্যালার্জি বা হাঁপানি হওয়া রোধ করতে পারলে নাকের পলিপ সমস্যা হওয়া রোধ করতে পারবেন। এসব রোগের লক্ষণগুলি আপনার নিয়ন্ত্রণে না থাকলে একজন অ্যালার্জি বিশেষজ্ঞের সাথে কথা বলুন।

ধূমপান পরিত্যাগ

নাকের জ্বালা এড়াতে তামাকের ধোঁয়া, রাসায়নিক ধোঁয়া এড়িয়ে চলুন। ধূমপায়ী হলে তা পরিত্যাগ করুন। এছাড়া ধূলকণাসহ যেসব পদার্থ নাকের প্রদাহ বাড়ায় সেসব পদার্থ এড়িয়ে চলুন।

অসুস্থতা প্রতিরোধ

অসুস্থতা থেকে নিজেকে রক্ষা করতে পদক্ষেপ নিন। কারণ ব্যাকটেরিয়া এবং ভাইরাস অনুনাসিক প্যাসেজে প্রদাহ সৃষ্টি করতে পারে। সুতরাং স্বাস্থ্যকর খাবার খান এবং নিয়মিত স্বাস্থ্যবিধি মেনে জীবনযাপন করুন। COVID-19 টিকা নিন।

গোলমরিচ

গোলমরিচের মধ্যে রয়েছে ক্যাপসাইসিন যা সাইনাস পরিষ্কারে যথেষ্ট ভূমিকা রাখে। ২০১১ সালের একটি গবেষণায় অনুনাসিক স্প্রে হিসেবে ব্যবহারে দেখা যায়, এটি পলিপের কারণগুলি থেকে মুক্তি দিতে কিছুটা সাহায্য করে।

এটি যেভাবে ব্যবহার করতে পারেন-

খাবার বা রেসিপিতে লাল মরিচের মশলা যোগ করুন। আবার এক কাপ ফুটন্ত জলে ১-২ চামচ লাল মরিচের গুড়া মিশিয়ে একটি গরম লাল চা তৈরি করতে পারেন। স্বাদ মনোরম করতে মধু বা মিষ্টিও যোগ করতে পারেন।

হলুদ

হলুদ নিরাময় এবং রন্ধনসম্পর্কীয় মশলা এবং প্রদাহ বিরোধী ভূমিকার জন্য বিখ্যাত। গবেষণা অনুসারে, হলুদের উপাদানগুলি শ্বাসনালীগুলির প্রদাহ ও জ্বালা কমাতে সাহায্য করে। 

ব্যবহার – খাবারে অবশ্যই হলুদ ব্যবহার করবেন। আবার এক কাপ ফুটন্ত জলে ১-২ চামচ হলুদের মশলা মিশিয়ে গরম হলুদ চা তৈরি করতে পারেন। সাথে স্বাদের জন্য মধু বা মিষ্টিও যোগ করতে পারেন।

পেপারমিন্ট

পেপারমিন্টে উল্লেখযোগ্য মেন্থল এবং ডিকনজেস্ট্যান্ট বৈশিষ্ট্য রয়েছে যা নাকের পলিপের লক্ষণ কমাতে সাহায্য করে। গবেষণায় দেখা গেছে সাধারণ সর্দিতে মেন্থল বেশ উপকারী।

ব্যবহারবিধি – প্রতি আউন্স জলে ৩ ফোঁটা পরিমাণ পেপারমিন্ট এসেনশিয়াল ওয়েল নিয়ে পরিষ্কার তুলো ডুবিয়ে অনুনাসিক প্যাসেজে রেখে দিতে পারেন। আপনি শ্বাস নেয়ার সময় বাষ্পাকারে এটি আপনার নাকের মধ্যে দিয়ে ঢুকে প্রদাহ কমাতে সাহায্য করবে। 

এছাড়া আরও ভালো অনুভূতি পেতে পেপারমিন্ট চা-ও উপভোগ করতে পারেন। এই চা বেশ উপকারি।

রসুন

রসুনের অনেক স্বাস্থ্য উপকারিতা রয়েছে। এর মধ্যে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল সংক্রমণের বিরুদ্ধে লড়াই করার ক্ষমতা রয়েছে যা প্রদাহ কমাতে ভূমিকা রাখে।

আদা

অনেকটা রসুনের মতো, আদাও নাকের পলিপের জন্য একটি সহায়ক ভেষজ হতে পারে। এটির মধ্যে অ্যান্টিমাইক্রোবিয়াল বৈশিষ্ট্য রয়েছে।

ব্যবহার – খাবারে ১-২ চামচ আদা যোগ করুন। এছাড়া গরম গরম এক কাপ আদা চা-ও উপভোগ করতে পারেন।

শেষ কথা

নাকের পলিপাস সমস্যায় দেরি না করে অবশ্যই ডাক্তারের শরণাপন্ন হতে হবে। কিন্তু যদি এটি বেশ গুরুতর না হয় তবে আপনি প্রাকৃতিক বা ঘরোয়া পদ্ধতি অনুসরণ করে এর চিকিৎসা করাতে পারেন। তবে এটি শতভাগ নিরাময়ী তা নয়। আপনি এর মাধ্যমে খানিকটা উপকৃত হতে পারেন শুধু। দীর্ঘস্থায়ী ও গুরুতর সমস্যার জন্য অবশ্যই বিশেষজ্ঞ ডাক্তারের সাথে পরামর্শক্রমে চিকিৎসা করতে হবে।

References

Treating Nasal Polyps at Home with Natural Treatments

https://www.healthline.com/health/nasal-polyps-natural-treatment

Nasal polyps treatment: home options,

https://www.healthpartners.com/blog/nasal-polyps-treatment/

You may also like

Leave a Comment